আপনার মন্তব্য উৎসাহ ও প্রেরণার সহায়ক !

আপনার মন্তব্য উৎসাহ ও প্রেরণার সহায়ক !

বুধবার, ৯ মে, ২০১২

রেসিপিঃ করলা ভাজি


বয়স যত বাড়তে থাকে তত নানান পদের তরু তরকারী মানুষের ভাল লাগে। বয়সের সাথে খাবার দাবারের একটা বিরাট সামাঞ্জস্য আছে। যে তরকারী ছেলে বা মেয়ে বেলায় খেতে চাই না তা বয়স বড়ে গেলে অনেক অনেক সুস্বাদু মনে হয়! আমি ছোট বেলায় করলা দেখলে পালিয়ে যেতাম আর এখন বলি, আহ করলা! শুধু করলা দিয়ে খেয়ে উঠে যেতে পারি এখন! চলুন, আজ একটা করলা ভাজি দেখি, সাথে আছে আমার করলাসুন্দরী!



করলা কেটে পিস পিস করে পরিমাণ মত লবণ, সামান্য লাল মরিচ, সামান্য হলুদ এবং এক চিমটি গোল মরিচ দিয়ে ভাল করে মেখে কিছুক্ষণ রেখে দিন।

একটা খোলায় কিছু তেল গরম করুন। গায়ে গায়ে তেল…।। লাল মরিচের একটা ঝাঁজ উঠতে পারে… রান্নাঘরের জানালা খুলে দিন… (যে কোন ভাজিতে সাবধান থাকবেন… তেলের ছিটা যেন গায়ে না লাগে…।।।)

এপিট ওপিট করে ভাজুন…।

কেমন ভাজি তা আপনি সিদ্বান্ত নিবেন…

ভাজি মনের মত হবার কিছু আগে কিছু পেঁয়াজ চার টুকরা করে করলার ফাঁকে ফাঁকে ভেজে ফেলুন… কাঁচা মরিচও দিতে পারেন…।

করলা দিয়ে পেঁয়াজ ঢেকে দিন…।

ব্যস পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত।

সাদাভাতের সাথে কিংবা পোলাউ নিয়ে বসে পড়তে পারেন।  বিলিভ ইট অর নট, ইট ইজ বেটার দ্যান চিকেন রোষ্ট!

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন