আপনার মন্তব্য উৎসাহ ও প্রেরণার সহায়ক !

আপনার মন্তব্য উৎসাহ ও প্রেরণার সহায়ক !

রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১১

খাসির শাহি বিরিয়ানি





প্রথম ধাপ:
মাংস রান্না— উপকরণ: খাসির মাংস ১ কেজি, তেল ও ঘি পৌনে ১ কাপ,

পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, দারচিনি ও এলাচ ৪টি করে, টক দই আধা কাপ, আলুবোখারা ৬-৭টি, বিরিয়ানি মসলা ১ টেবিল-চামচ, কেওড়াজল ২ টেবিল-চামচ, আদা ১ টেবিল-চামচ, রসুন ১ চা-চামচ, পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ, টমেটো সস সিকি কাপ, চিনি ১ চা-চামচ, কাঁচামরিচ আধা কাপ।
প্রণালি: পাত্রে তেল ও ঘি দিয়ে ছোট ছোট আলু ও লবণ ভাজতে হবে। সঙ্গে অল্প বেরেস্তা ও সামান্য চিনি দিয়ে নামাতে হবে। বাকি তেলে ১ কাপ পেঁয়াজ কিছুক্ষণ নেড়ে কাঁচা মরিচ দিতে হবে। একটু লাল হয়ে এলে আদা, রসুন, এলাচ, দারচিনি, লবঙ্গ, টক দই ও লবণ দিয়ে কষিয়ে মাংস দিতে হবে। সেদ্ধ করার জন্য প্রয়োজনমতো পানি দিতে হবে। সেদ্ধ হওয়ার কাছাকাছি এলে কেওড়াজল, আলুবোখারা, টমেটো সস, গুঁড়া দুধ ও অল্প পেঁয়াজ বেরেস্তা দিয়ে দমে বসাতে হবে। সেদ্ধ হয়ে পানি শুকালে নামানোর আগে অর্ধেক বিরিয়ানির মসলা ছিটিয়ে দিয়ে ঢেকে নামিয়ে রাখতে হবে।

দ্বিতীয় ধাপ:
পোলাও রান্না—উপকরণ: পোলাওয়ের চাল ৫০০ গ্রাম, পানি চালের দেড়গুণ, লবণ ১ টেবিল-চামচ, চিনি ১ চা-চামচ, এলাচ, দারচিনি, পেঁয়াজ বেরেস্তা ২ টেবিল-চামচ, গুঁড়া দুধ ৪ টেবিল-চামচ, ঘি আধ কাপ, কিশমিশ, পেস্তা বাদাম ও কাঠ বাদাম আধা কাপ, কেওড়াজল ২ টেবিল-চামচ।
প্রণালি: হাঁড়িতে পানি, ঘি, দুধ, দারচিনি, এলাচ, চিনি, পেঁয়াজ বেরেস্তা ২ টেবিল-চামচ ও লবণ দিয়ে চুলায় বসাতে হবে। ফুটে উঠলে চাল ও কেওড়াজল দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। পানি সমান হলে দমে বসাতে হবে ১০ মিনিট। ১০ মিনিট পর পোলাওয়ের সঙ্গে রান্না করা মাংস, ভাজা আলু, কিশমিশ, বাদাম, বেরেস্তা, বিরিয়ানির বাকি অর্ধেক গুঁড়া মসলা ও মাওয়া মেশাতে হবে। এবার তাওয়ার ওপর অল্প জ্বালে ২০ মিনিট ঢাকনা বন্ধ করে দমে রাখতে হবে। নামিয়ে আর ১০ মিনিট পর পরিবেশন।
বিরিয়ানির মসলা তৈরি—  :লবঙ্গ ৪-৫টা, এলাচ ১ টেবিল-চামচ, দারচিনি ১ টেবিল-চামচ, শাহজিরা ১ চা-চামচ, জয়ত্রি ১ চা-চামচ, জায়ফল কম-অর্ধেক, সাদা গোলমরিচ ২ চা-চামচ। উপকরণগুলো হালকা ভেজে গুঁড়া করে নিলেই বিরিয়ানির মসলা হয়ে যাবে। 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন