আপনার মন্তব্য উৎসাহ ও প্রেরণার সহায়ক !

আপনার মন্তব্য উৎসাহ ও প্রেরণার সহায়ক !

শনিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১০

ভারকারী

মজার রেসিপি(ভারকারী)

নামকরনঃ- এই খাবারটি ভাত এবং তরকারিকে ক্লোন করে তৈরী করা । তাই এর নাম ভারকারী, এটি ব্যাচেলরদের একা খাওয়ার ক্ষেত্রে বেশী উপকারী ।
উপকরনঃ-
১। এক পোয়া ভাতের চাল।
২। ১০০ গ্রাম চিংড়ি ।
৩। ১০০ গ্রাম আলু ।
৪। ১০০ গ্রাম পুইশাক/বেগুন/ ।
৫। এক কাটা চামচ হলুদ(অবশ্যই কাটা চামচ)।
৬। পরিমান মতো তেল, লবন, কাচামরিচ, পেয়াছ।
৭। ঢাকনা আর চামচ সহ একটি কড়াই । এবং জ্বালানী ব্যবস্থা সহ চুলা একটি ।
প্রস্তুত প্রণালীঃ প্রথমে চাল ধুয়ে কড়াইয়ে পরিমানমতো পানি দিয়ে রেখে দিন ,সংগে চিংড়ি গুলোও দিয়ে রাখুন ।এবার একে একে আলু ও পুইশাক কুচিকুচি করে কেটে কড়াইতে দিতে থাকুন ,এরপর হলুদ,মরিচ,তেল,লবন দিয়ে চামচ দিয়ে নাড়া দিয়ে চুলায় চড়িয়ে কিছুক্ষণ জ্বাল দিন। কিছুক্ষণের মধ্যেই দেখবেন প্রত্যাশিত ভারকারী রান্না হয়ে গেছে।
গুনাগুন ও উপকারীতাঃ এই খাবারটি অত্যন্ত পুস্টিকর ।এই খাবার তৈরীতে সময় ও অর্থ দুইই কম লাগে,তাই স্বাস্থ্য ঠিক রেখে অর্থ সাশ্রয় করবে।
যাদের জন্য প্রযোয্যঃ এই খাবারটি কম/বেশী সবার জন্যই প্রযোয্য ,তবে বিশেষভাবে যারা আমার মতো ব্যাচেলর থাকেন,সময় কম এবং বাইরের বুয়াদের রান্না খেতে পারেননা তাদের জন্য বেশী কাজে আসবে। খাবারটি আমি প্রায়ই খাই। বিশেষ করে সপ্তাহ এবং মাসের শেষে যখন কাজের চাপ বেশী থাকে। সকল ব্যচেলর ছেলে/মেয়েদের প্রতি শুভ কামনা রইলো।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন